ভেঙ্গে গেল আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর!

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নে মুজিববর্ষের উপহার আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ শেষ হওয়ার আগেই ধসে পড়েছে ৪টি ঘর।
 
সোমবার (৩১ মে) ভোরে বৃষ্টির সময় উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিণধরা (বগারচর) নামক এলাকায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরগুলো হঠাৎ ধসে পড়ে।

স্থানীয় অধিবাসী মতিয়ার রহমান এবং সুবিধাভোগী শাহাজামাল ও ফুলো রানি বাংলানিউজকে জানান, নিচু জায়গায় এবং বালু মাটিতে ঘরগুলো নির্মাণ করায় সামান্য বৃষ্টিতেই ঘরের নিচের মাটি ধসে যায়। ঘরের ফাউন্ডেশন ঠিক না থাকায় নিচের মাটি ধসে ৪টি ঘর ভেঙে পড়েছে।

রৌমারী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আজিজুর রহমান জানান, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের পুনর্বাসন প্রকল্পের (আশ্রয়ণ প্রকল্প-২) আওতায় দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নে ৩৫টি পরিবারকে এ সুবিধার আওতায় আনা হয়েছে। ১ম ধাপে ৯টি ঘর দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি গৃহ নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা এবং ২য় ধাপে ২৬টি ঘর দেওয়া হয়েছে। এর প্রতিটি গৃহ নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ১লাখ ৯০ হাজার টাকা। ইতোমধ্যে ৯টি গৃহ নির্মাণ শেষে সুবিধাভোগীদের মধ্যে চাবি হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকিগুলোর কাজ চলমান রয়েছে। উপজেলা প্রশাসন সরাসরি এ নির্মাণের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন। নিম্নমানের কাজ নয়, মূলত মাটির ৪টি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল ইমরান জানান, যে ঘরগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তা মেরামত করে দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে কাজ শুরু করা হয়েছে। মূলত মাটির কারণে এমনটি হয়েছে। — বাংলানিউজ২৪

Share Button