স্ত্রীকে খুন করে এসে শাশুড়িকে খুন

ডেস্ক রির্পোট: ভারতে শ্বশুরের সামনেই শাশুড়িকে গুলি করে অমিত আগরওয়াল (৪২) নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ দেশটির ফুলবাগানের ৩২-এ রামকৃষ্ণ সমাধি রোডের অক্ষরা গোল্ড আবাসনে এই ঘটনা ঘটে। এসময় পরপর ২টি গুলির আওয়াজ শোনা যায়। জি প্লাস ফোর ওই আবাসনের দোতলায় থাকতেন ললিতা ঢনঢনিয়া (৬০) ও তার স্বামী।

সারাদেশে জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক, আগ্রহীরা জরুরী ভিত্তিতে যোগাযোগ করুন। মোবাইল: ০১৯১১-৬৯০৮২৮

এর আগে বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকেও খুন করে আসেন অমিত। ফ্ল্যাটের ঘর থেকে উদ্ধার হওয়া তার সুইসাইড নোট থেকে বিষয়টি জানতে পেরেছে পুলিশ। বেঙ্গালুরু পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তারা বিষয়টি নিশ্চিত করে। আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে।

ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, অমিতের শ্বশুর পেশায় ব্যবসায়ী সুভাষ ঢনঢনিয়া ফুলবাগানের রামকৃষ্ণ সমাধি রোডের অভিজাত রামেশ্বরম আবাসনের বাসিন্দা। তিনতলায় তার ফ্ল্যাট। আজ বিকেল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ অমিত হঠাৎ করে হাজির হন শ্বশুরের ফ্ল্যাটে। সম্পত্তি সংক্রান্ত কোনো বিষয় নিয়ে অমিতের সঙ্গে বচসা শুরু হয় ৭০ বছরের সুভাষের। সেই বচসা থামানোর চেষ্টা করেন সুভাষের স্ত্রী ললিতা। বচসার মধ্যেই হঠাৎ ললিতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে দেন অমিত। খুব কাছ থেকে গুলি করা হয় ললিতাকে। গুলিবিদ্ধ হয়ে মেঝেতে পড়ে যান ললিতা। সেই সময় মুহূর্তের সুযোগে ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে যান সুভাষ। তিনি বাইরে থেকে ফ্ল্যাটের দরজা বন্ধ করে দিয়ে এক প্রতিবেশীর ফ্ল্যাটে আশ্রয় নেন।

গুলির আওয়াজ শুনেই এক প্রতিবেশী দেশটির জরুরি সেবার নম্বর ১০০-এ ডায়াল করেন। ফুলবাগান থানা থেকে ছুটে আসে পুলিশ। দরজা ভেঙে পুলিশ দেখে বিভত্স কাণ্ড। ঘরের মেঝেতে পড়ে রয়েছে ললিতা ঢনঢনিয়া নামে এক মহিলার মরদেহ। বিছানায় আরেক ব্যক্তির রক্তাক্ত দেহ।

প্রাথমিকভাবে জানা গেছে মৃত অমিত আগরওয়ালের (৪২) মাথায় গুলির চিহ্ন রয়েছে। অন্যদিকে, ললিতার বুক ও পেটের মধ্যে গুলির লেগেছে। ঘরে থেকে একটি ৬এমএম পিস্তল পাওয়া গেছে। পিস্তলে মোট চারটি গুলি ছিল। তার মধ্যে ২টি ব্যবহার হয়েছে। অন্যদুটি রয়েছে। পিস্তলটির লাইসেন্স রয়েছে কি-ন তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ওই ঘর থেকে একটি সুইসাইড নোটও উদ্ধার করেছে পুলিশ। তা থেকে জানা যায়, বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকেও খুন করে এসেছেন অমিত। সূত্র: জি-নিউজ, আনন্দবাজার।

Share Button