নোয়াখালীতে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি কর্মীদের সংঘর্ষ, আহত-২০

নোয়াখালী সংবাদদাতা  : নোয়াখালীতে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। শনিবার প্রেসক্লাবের সামনে ও শহরের বিভিন্ন স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে বিএনপির অন্তত ১৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এ সময় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপির নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড হয়ে মিছিল নিয়ে সমবেত হয়। পরে আরেকটি মিছিল আসলে পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। মুহুর্তের মধ্যে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় পুলিশ লাঠিচার্জ করে। কিছুক্ষণ পর শুধু নোয়াখালী প্রেসক্লাবে নয় শহরের বিভিন্ন স্থানে বিএনপির মিছিল থেকে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে পূর্ব নির্ধারিত বিক্ষোভ সমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়।

দুপুরে কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানের মাইজদীস্থ বাস ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে তারা বলেন, পুলিশ বিনা উসকানিতে তাদের মিছিলে বাধা দেয় এবং নেতাকর্মীদের লাঠি চার্জ করে। এতে তাদের ১৫ থেকে ২০জন নেতাকর্মী আহত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম হায়দার, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবদুর রহমান, জেলা যুবদলের সভাপতি মঞ্জুরুল আজিম সুমন ও সাধারণ সম্পদাক নুরুল আমিন খানসহ অনেকে।

এ বিষয়ে সুধারাম থানার উপ-পরিদর্শক আব্দুল বাতেন জানান, সমাবেশ করার কোনো অনুমতি ছিলো না বিএনপির। তারপরও তারা সমাবেশ করছিলো। কিন্তু হঠাৎ মিছিল থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুঁড়ে, পরে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করেছে মাত্র।

Share Button