নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে যাত্রী ছাউনি!

খ ম জুলফিকার, মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আখাইলকুড়া ইউনিয়নের কাজিরবাজার খেয়াঘাটের যাত্রী ছাউনি তদারকি ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

কাজিরবাজার খেয়াঘাটের একমাত্র যাত্রী ছাউনি। এ সুযোগে স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ইট – রড খুলে নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, এ যাত্রী ছাউনিটির দুই ভিত্তি স্তম্ভ নদী ভাঙনের কারণে এরইমধ্যে নদীগর্ভে চলে গেছে। মূল কাঠামো কোনো রকম নদীর তীর ঘেঁষে দাঁড়িয়ে আছে। যা যেকোনো মুহূর্তে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।

স্থানীয় বাসিন্দা হাজী নোমান আহমদ জানান, ২০০৫/০৬ সালে দিকে জেলা পরিষদের তত্ত্বাবধানে কাজিরবাজার খেয়াঘাট সংলগ্ন এ যাত্রী ছাউনিটি স্থাপিত হয়। জেলা সদরের সঙ্গে প্রায় ১৫টি গ্রামের যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ককাজিরবাজার খেয়াঘাট। এই ঘাট দিয়ে প্রতিদিন কয়েক শতাধিক মানুষ চলাচল করার কারণে এ যাত্রী ছাউনির উপযোগিতা অধিক। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে অযত্ম অবহেলার ফলে যাত্রী ছাউনিটি নদী গর্ভে বিলীন হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

স্থানীয় শিক্ষক খসরুজ্জামান বলেন, যাত্রী ছাউনিটি নদী পারাপার করা যাত্রীদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নৌকার জন্য অপেক্ষারত মানুষ সেখানে বসে সময় কাটায়। এটি বিলীন হয়ে গেলে যাত্রীদের দুর্ভোগে পড়তে হবে।

সম্পাদনায়: জ্যোৎস্না আক্তার রুমা।

Share Button