ঠিকাাদারে হাতে লাঞ্চিত তাড়াশে হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ ৪ জন

মহসীন আলী, তাড়াশ, সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে হাসপাতালের ঠিকাদারের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ ৪ জন ।

মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতাল চত্বরে ওই লাঞ্চিতের ঘটনা ঘটে। ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের খাবারের মান যাচাইকে কেন্দ্র করে খাদ্য সরবরাহকারী ঠিকাদারের লোকের হাতে তারা লাঞ্চিত হন। পরে তাড়াশ থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, দুপুরে হাসপাতালের কুক শফিকুল ইসলাম রোগীদের জন্য খাদ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স আব্দুর রাজ্জাক ট্রেডাসের নিয়োজিত লোকের কাছ থেকে তালিকা অনুযায়ী খাবার বুঝে নিতে গেলে তার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ঠিকাদারের লোক গোলাম মোস্তফা ও বাহাদুর আলী রান্না ঘরের থাকা খড়ি দিয়ে কুক শফিকুলকে মারধর করে।

এ সময় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জামাল মিয়া সেখানে উপস্থিত হয়ে এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে তাকেও লাঞ্চিত করা হয় এবং তার পরিহিত পিপিই টেনে ছিড়ে ফেলে কিল ঘুষি মারা হয়। এছাড়া অকথ্য ভাষায় গালাগালী ও তাদের কথামত না চললে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এছাড়া ওই কর্মকর্তা আরো জানান, তাকে রক্ষা করতে এসে হাসপাতালের কর্মরত শাহাদৎ হোসেন ও বাবলু মিয়া কেও তারা লাঞ্চিত হতে হয়েছে ।

এ ব্যাপারে মেসার্স আব্দুর রাজ্জাক ট্রেডাসের ঠিকাদার আব্দুর রাজ্জাক জানান, আমি বাহিরে আছি। খাবার সরবরাহ করা নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে শুনেছি। আমি ফিরে এসে আপনাদের বিস্তারিত জানাবো।

স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জামাল মিয়া বাদী হয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৩ জনের বিরুদ্ধে তাড়াশ থানায় মামলা করার চেষ্টা করছেন ।

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার ওসি (তদন্ত) মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। মামলা করা প্রক্রিয়া শেষ হলে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

আরোও পড়ুন >>>>>>

সৈয়দ লিয়াকত হোসেন আর নেই
ধরা পড়ে ফের বিয়ের পিঁড়িতে নারী ভাইস চেয়ারম্যান
সিলেট ছাড়লেন ২৭২ ব্রিটিশ নাগরিক

Share Button