জালালাবাদ এসোসিয়েশন নির্বাচন ২৭ অক্টোবর

ঢাকাস্থ জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নির্বাচন বেশ জমে উঠেছে। কৌশলে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছেন প্রার্থীরা। ইতিমধ্যে দু’টি প্যানেল ও স্বতন্ত্র মিলে ৭৩জন হেভিওয়েট প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

আগামী ২৭ অক্টোবর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে ভোটার রয়েছেন প্রায় সাড়ে ৪ হাজার। নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ৩ সদস্যের একটি অভিজ্ঞ নির্বাচন কমিশন কাজ করে যাচ্ছে।

জানা যায়, ড. একে আব্দুল মুবিন ও এম এ রউফের নেতৃত্বে ‘গড়ে তুলি সমৃদ্ধ জালালাবাদ’ এবং সিএম কয়েস সামি ও এডভোকেট জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে ‘সৌহার্দের উন্মুক্ত সোপান-জালালাবাদ’ স্লোগান ধারণ করে নির্বাচন কমিশনে দু’টি প্যানেল জমা পড়েছে। প্রত্যেক প্যানেলে ৩৩জন করে প্রার্থী রয়েছেন।

ইতিমধ্যে দু’টি প্যানেল ও স্বতন্ত্র মিলে ৭৩জন হেভিওয়েট প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এদের বেশিরভাগই হেভিওয়েট প্রার্থী। এজন্য ভোটারদের কাছে তাদের নিজস্ব পরিচিতি রয়েছে।

জালালাবাদ এসোসিয়শনের প্রবীণ সদস্য আবুল মোনায়েম নেহেরু প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং এমএ রউফ ও জাফর রাজা চৌধুরী নির্বাচন কমিশনার করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে।

এদিকে নির্বাচন কমিশনার এমএ রাউফ বলেন, আমরা প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীদের মনোনয়ন যাচাই-বাছাই করছি। আগামী বুধবার বৈধ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করবো। তিনি বলেন, ৮ অক্টোবর মনোনয়ন প্রত্যাহের শেষ দিন।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ২৭ অক্টোবর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে। এতে মোট ভোটার রয়েছেন ৪ হাজার ২শ’ ৪৪জন।

সূত্রমতে, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নির্বাচনে একটি প্যানেলে সভাপতি সিএম কয়েস সামি, সহ সভাপতি (জালালাবাদ) নাসির উদ্দিন মিঠু, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ নাজমুল ইসলাম নাজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হান্নানসহ বিভিন্ন পদে ৩৩জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

অপর প্যানেলে ড. একে আব্দুল মুবিন সভাপতি, জালাল আহমদ সহ সভাপতি (জালালাবাদ), এম এ রউফ সাধারণ সম্পাদক, মো. ইমাম মেহেদি চৌধুরী এনাম কোষাধ্যক্ষ, আ ফ ম সিরাজুল ইসলাম শামীম সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক ও স্থপতি শাকুর মজিদ সদস্য (জালালাবাদ), ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ মুনসিফ আলী সদস্য (জালালাবাদ) সহ ৩৩জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা রয়েছে।

এদিকে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে পাক-প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন বলে বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম’কে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার আবুল মোনায়েম নেহেরু। তিনি রাজধানীর বুকে সিলেটের ঐতিহ্য ধরে রাখতে নির্বাচনকালীন সময়ে সকলের সর্বাত্মক সহযোগীতা কামনা করেছেন।

Share Button